আজ ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

মাধবদীতে মহান স্বাধীনতা দিবস পালন

মোঃ আল আমিন, মাধবদী (নরসিংদী) সংবাদদাতা:

যথাযোগ্য মর্যাদায় ৫৩তম মহান স্বাধীনতা দিবস পালন হয়েছে মাধবদীতে রোববার। একাত্তরের এই দিনের প্রথম প্রহরে পাকিস্তানি বাহিনীর হাতে গ্রেপ্তার হওয়ার আগে বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঘোষণা করেন বাংলাদেশের স্বাধীনতা। বলেন, “এটাই হয়তো আমার শেষ বার্তা। আজ থেকে বাংলাদেশ স্বাধীন।” সেই থেকে শুরু। এরপর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর নির্বিচার হত্যা, ধ্বংস ও পৈশাচিকতার বিরুদ্ধে ৯ মাসের মরণপণ লড়াইয়ে ৩০ লাখ শহীদের আত্মদানের বিনিময়ে অভ্যুদয় ঘটে স্বাধীন বাংলাদেশের। রোববার যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন উপলক্ষে এবার নরসিংদীর মাধবদীতে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। রোববার প্রত্যুষে মাধবদীতে একত্রিশ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসটির সূচনা হয়।
সূর্যোদয়ের পর পর মাধবদী শহর আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের উদোগ্যে পৌর ভবনের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন
মাধবদী শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ মোশাররফ হোসেন প্রধান মানিক। পরে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন। মাধবদী শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব সালাউদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে পৌর হলরুমে অনুষ্ঠানে কোরআন তেলওয়াত এবং মোনাজাতের মাধ্যমে স্বাধীনতা দিবসের কর্মসূচী পালন করা হয়। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ মহান মুক্তিযুদ্ধে নিহত সকল শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়। এ সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, মাধবদী পৌরসভার কাউন্সিলর,আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ, আলেম-ওলামা, এতিমখানার ছাত্রসহ স্থানীয় জনসাধারণ।
এদিকে সকাল ৯টায় মাধবদী প্রেসক্লাব সম্মুখে পতাকা উত্তোলন করেন মাধবদী প্রেসক্লাবের সভাপতি আলহাজ্ব জসিম উদ্দিন ভুইয়া, সাধারণ সম্পাদক হোসেন আলী সহ প্রিন্ট ও ইলেক্টনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা। এসময় প্রেসক্লাব হলরুমে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। পরে মাধবদী মার্চেন্ট এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে পতাকা উত্তোরন সহ ভিবিন্ন কর্মসুচী পালন করেন। এ উপলক্ষে মাধবদীর সকল সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও বেসরকারি ভবনে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে জাতীয় পতাকা এবং মাধবদী শহরে সহজে দৃশ্যমান ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়েছে এবং গুরুত্বপূর্ণ ভবন ও স্থাপনাসমূহ আলোকসজ্জায় সজ্জিত করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category