আজ ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কিশোরগঞ্জে বিএনপির জনসমুদ্র, সরকার পতনের অঙ্গীকার

নিজস্ব প্রতিনিধি ঃ কেন্দ্রীয় কমিটির অংশ হিসেবে- দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, সীমাহীন লোডশেডিং, মিথ্যা মামলায় পুলিশের হয়রানি, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধিনে আগামী সংসদ নির্বাচনসহ ১০ দফা দাবিতে জন সমাবেশ করেছে কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপি।
শনিবার (২৭ মে) বিকেলে শহরের ঐতিহাসিক রথখলা ময়দানে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
দুপুর থেকে বিভিন্ন উপজেলা থেকে খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে জন জনসভা স্থলে আসতে থাকেন নেতা কর্মীরা, যা পরিনত হয় জনসমুদ্রে। পরে, বিকাল চারটায় শুরু হয়ে ছয়টায় শেষ হয় জনসভা।
সমাবেশে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল কিশোরগঞ্জ জেলার শাখার সভাপতি শরিফুল আলম শরিফের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য প্রখ্যাত শ্রমিক নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা মোঃ নজরুল ইসলাম খান।

জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলামের সার্বিক নির্দেশনায় এবং সাংগঠনিক সম্পাদক হাজী ইসরাইল মিয়া, আমিনুল ইসলাম আশফাক, নাজমুল আলম ও হানিফ উদ্দিন আহম্মেদ রনকের সঞ্চালনায় এতে আরও বক্তব্য রাখেন, জাতীয়তাবাদী দল কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দসহ জেলা কমিটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, দ্রব্যমূল্যের অব্যাহত ঊর্ধ্বগতিতে জনজীবন আজ বিপর্যস্ত। ক্ষমতাসীন দলের লোকদের দুর্নীতি ও বাজার সিন্ডিকেটের কারণে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের মূল্য ভয়াবহ রূপ লাভ করেছে। সেই সাথে দুর্নীতি, অর্থ আত্মসাৎ ও বিদেশে অর্থপাচার করে বাংলাদেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে। যার ফলে বিদ্যুতের অসহনীয় লোডশেডিংয়ের ফলে শিল্প ও কলকারখানায় উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে এবং মানুষ কঠিন পরিস্থিতি মোকাবিলা করছে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোঃ নজরুল ইসলাম খান বলেন, সম্প্রতি নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য যেমন চাল, ডাল, তেল তার সঙ্গে গ্যাস, পানি বিদ্যুতের যে লাগামহীন দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে, এতে প্রতিটি মানুষ আর্থিক দিক দিয়ে আক্রান্ত হচ্ছে। বিনা ভোটের শেখ হাসিনা সরকারের অধীনে কোন নির্বাচনে হতে দেয়া হবে না। দেশে যদি কোন নির্বাচন হয়, তা হবে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে। তাই, নিরপেক্ষ নির্দলীয় সরকারের অধিনে আগামী সংসদ নির্বাচন না দেওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার কথাও বলেন।

বর্তমান সরকারের কোথাও কোনো নিয়ন্ত্রণ নাই, দ্রব্য মুল্যের বাজারে যেমন নিয়ন্ত্রণ নেই, একইভাবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীরও কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই, উৎপাদনে নিয়ন্ত্রণ নেই। দুর্নীতির কারণে এমন একটা পর্যায়ে চলে গেছে যে, প্রতিটি ক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে। গ্যাস, জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ার পরই দ্রব্যমূল্যের দাম বেড়েছে। এঅবস্থা আর চলতে দেয়া যাবেনা “বিএনপি জনগণের দল, জনগণের সম্মিলিত শক্তির মুখে এই সরকারকে পরাজিত হতে বাধ্য করবো”।

এ সময় জেলাসহ সকল উপজেলার নেতৃবৃন্দ ও কর্মী সমর্থকেরা জন সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category