আজ ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৬শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

কিশোরগঞ্জে স্ত্রীর যৌতুক মামলায় স্বামীকে কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত

নিজস্ব প্রতিনিধি ঃ  কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরের স্ত্রীর দায়ের করা যৌতুক মামলায় স্বামীকে দেড় বছরের কারাদণ্ডের রায় দিয়েছে আদালত।

২৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টার দিকে নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইবুনাল -১ এর বিচারক মুহাম্মদ হাবিবুল্লাহ এ রায় ঘোষণা করেন। এছাড়াও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়, অনাদায়ে আরো ১৫ দিন সাজা ভোগ করতে হবে।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন, হোসেনপুর উপজেলার দক্ষিন পুমদী গ্রামের মোঃ সৈয়দ হোসেনের পুত্র ৩৭ বছর বয়সী কামাল উদ্দিন।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়,আসামীর সহিত বিগত ২৭/০৮/২০০৫ তারিখে ইসলামী শরা শরিয়ত ও রেজিঃকৃত কাবিন মূলে সামাজিক ভাবে বিবাহ হয়। বিবাহের পর আসামীর সহিত ঘর সংসার করা কালীন আমাদের একটি কন্যা সন্তান হয়। যার বর্তমান ব্যাস ৮ বৎসর নাম কথা মেনি। আমি বর্তমানে ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। আসামী একজন শৌতুকলোভী পাষান্ড স্বামী। আসামী ইতিপূর্বে আমকে যৌতুকের জন্য নির্যাতন করিয়া আমার পিত্রালয়ে পাঠাইয়া দেয়।
হোসেনপুর উপজেলার শাহেদল নয়াপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মোঃ সোহরাব উদ্দিনের মেয়ে মোছাঃ আছমা আক্তার (৩০)’র সাথে পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয় পুমদী ইউনিয়নের মোঃ সৈয়দ হোসেনের পুত্র কামাল উদ্দিনের। বিয়ের পর থেকেই আছমার উপর স্বামী কামাল উদ্দিন যৌতুকের জন্য চাপ সৃষ্টি করে আসছিল। ঘটনার তারিখ ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৪ রোজ শনিবার সময় রাত্র অনুমান ১০.০০ টায় ২ লক্ষ টাকা যৌতুকের জন্য শারীরিক নির্যাতন করিয়া শরীরের বিভিন্ন অংশে ফুলা জখম আঘাতের চিহ্ন দেখা দিলে
২০০০ সনের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধনী/০৩) এর ১১(খ) ধারায় কিশোরগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে ৬৮৬/১৭ নং মামলায় দীর্ঘ স্বাক্ষগ্রহণ শেষে এ রায় ঘোষণা দেন বিচারক।
রাষ্ট্রপক্ষে আইনজীবী এম এ আফজাল হোসেন ও আসামি পক্ষে এডভোকেট
বিলাশ বিশ্বাস মামলাটি পরিচালনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     More News Of This Category