আজ ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

তাড়াইলে বৃক্ষরোপন ও প্রচারাভিযানে ৬১টি গ্রামে গাছ লাগানোর উদ্যোগ

হুমায়ুন রশিদ জুয়েল : ‘বৃক্ষ দিয়ে সাজাই দেশ, সমৃদ্ধ করি বাংলাদেশ’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ৯ জুলাই মঙ্গলবার তাড়াইল উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে বৃক্ষরোপন অভিযান এর প্রচারাভিযান কর্মসূচী শুরু হয়। উপজেলা প্রশাসন ও ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার বাংলাদেশ এর আয়োজনে , দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশ এর সহযোগিতায় এই প্রচারাভিযান ৯ জুলাই থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত ৬১টি গ্রামে ৩০০০টি গাছ রোপন এর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

বৃক্ষরোপন অভিযান এর প্রচারাভিযানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সাংবাদিক রবীন্দ্র সরকারের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উদ্বোধন করেন তাড়াইল উপজেলার নির্বাহী অফিসার আল মামুন। বিশেষ অতিথি খায়রুল বাশার, আমিনুল ইসলাম বাবুল সাংবাদিক, ও সম্পাদক, দূনীতি প্রতিরোধ কমিটি। অনুষ্ঠানে শিক্ষক, জনপ্রতিনিধি, তাড়াইল সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় ও হাজী গোলাম হোসেন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ইয়ূথ ইউনিটের সদস্য ও ইউনিয়ন ইয়ূথ ইউনিটের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। প্রচারাভিযানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল মামুন বলেন, পরিবেশ সুরক্ষায় এবং দূর্যোগ মোকাবেলায় বৃক্ষরোপনের বিকল্প নেই। জীবনে ভালো কাজের এবং ভালো লাগার বিষয় হিসেবে গাছ লাগানো একটি উত্তম কাজ হতে পারে। এটি জীবনে সবার জন্য সঞ্চয়ও হতে পারে। আমরা প্রত্যেকে এই বৃক্ষরোপন অভিযানে প্রচারাভিযান অংশীদার হিসেবে একটি করে গাছের চারা পাবো, আমাদের প্রত্যেকের দায়িত্ব হবে আরো ৫টি করে গাছ নিজে সংগ্রহ করে লাগানো, যদি কেউ সংগ্রহ করতে কেউ না পারে আমাকে জানালে ব্যবস্থা করে দিব, প্রত্যেকের অঙ্গীকার করতে হবে আমি পরিবেশবান্ধব ৫টি দেশি গাছ লাগাবো। বিশেষ অতিথি হিসেবে খায়রুল বাশার বৃক্ষরোপন অভিযান কর্মসূচীর প্রচারাভিযান বিষয়টি প্রাসঙ্গিগভাবে এর গুরুত্ব তুলে ধরেন, বর্তমান সময়ে জলবায়ূ পরিবর্তনে নেতিবাচক প্রভাব ও পরিবেশ বিপর্যয় মোকাবেলায় বৃক্ষরোপন অভিযানের প্রচারভিযান গ্রামে গ্রামে এই কর্মসূচীটি পালিত হবে এবং এই কর্মসূচীর মাধ্যমে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে ১৫ হাজার গাছ লাগানো হবে যাতে তাড়াইলে সবুজ বিপ্লব ঘটবে, যাতে আগামী সময়ে পুষ্টির যোগান এবং অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি তৈরি হবে। সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম বাবুল দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানান এই ধরনের উদ্যোগ হাতে নেয়ার জন্য, অতীতেও ভালো ভালো কাজের উদ্যোগ নিয়েছে, আমি প্রত্যেকটি কাজেই অংশগ্রহণ করেছি। আজকের বৃক্ষরোপন অভিযান এর প্রচারাভিযান উদ্যোগটি পরিবেশ রক্ষার জন্য বেশ উপযোগী, এর মধ্য দিয়ে যে সবুজ বিপ্লব ঘটবে তা আগামীতে তাড়াইল এর সুফল ভোগ করবে, উপজেলা প্রশাসন সার্বিকভাবে সহযোগিতা করবে এবং আমরাও এই কাজে সবাই সহায়তা করবো। সাংবাদিক রবীন্দ্র সরকার বিস্তারিতভাবে কোথায় কোথায় এই কার্যক্রম চলবে তা তার বিবনরণীতে তুলে ধরেন। তাড়াইলের ৬টি ইউনিয়ন দামিহা, ধলা, দিগদাইড়, রাউতি, তাড়াইল সাচাইল ও তালজাঙ্গা ইউনিয়নে প্রচারাভিযানের মাধ্যমে অংশীদার হিসেবে আম, কাঁঠাল, আমড়া, জাম, জলপাই, লটকন,মেহগনি, নিম গাছের চারা বিতরণ ও রোপন করা হবে পর্যায়ক্রমিকভাবে দামিহা, কাচিলাহাটি, রাহেলা, হাছলা, মাগুরী, বগারবাইদ, আনোয়ারপুর, কাজলা, নগরকূল, চকপাড়া, কাউড়া, কল্লা, বরুহা মাঝপাড়া, সিংধা, দিগদাইড় পূর্ব, দিগদাইড় পশ্চিম, নয়নসুখ, ভাদেড়া, আছভয়া, সওদাগড়পাড়া, ঘোষপাড়া, তালজাঙ্গা, চরতালজাঙ্গা, বাশাটি, শ্রীপুর, আকবপুর, আড়াইউড়া, শাহবাগ, চিকনী, বান্দুলদিয়া, পংপাচিহা, পাইকপাড়া, পূর্ব সাচাইল, পশ্চিম সাচাইল, স্বারং, তাড়াইল, মধ্য সাচাইল, সহিলাটি, দশদ্রোন, দড়িজাঙ্গীরপুর, তাড়াইল সাচাইল, হড়িগাতী, মৌগাঁও, পাড়াবানাইল, মেষগাঁও, শিমুলহাটি, কাউয়ালিপাড়া, ভাওয়াল, পুরুড়া, রাউতি, কৌলী, চাঁনপুর, গজেন্দ্রপুর, নয়াপাড়া, বিয়ারকোনা, পাথারিয়া পাড়া, উত্তর ধলা, আজবপুর, দক্ষিণ ধলা, তেউরিয়া, কলুমা এই ৬১টি গ্রামে এই প্রচারাভিযান অনুষ্ঠিত হবে। প্রচারাভিযান সফল করার জন্য ইউনিয়ন সমন্বয়কারী হুমায়ূন রশীদ জুয়েল, পাপিয়া, সেতু, রাকিব ও আলাউদ্দিন এবং স্বেচ্ছাব্রতীবৃন্দ দায়িত্ব পালন করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category