আজ ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

তাড়াইল উপজেলায় শাহিন দ্বিতীয় বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় বিশাল গণসংবর্ধনা

হুমায়ুন রশিদ জুয়েল : কিশোরগঞ্জ তাড়াইল মুক্তিযোদ্ধা সরকারি কলেজ প্রাঙ্গনে, মোঃ জহিরুল ইসলাম ভূঞা শাহিন দ্বিতীয়বারের মত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায়,তাড়াইল সাচাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ সাঈম দাদ খান নওশাদ এর সভাপতিত্বে ও দামিহা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ হুমায়ুন কবির এবং ছাত্র সমাজের সভাপতি আলমগীর হোসাইনের সঞ্চালনায় বিশাল গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিরোধী দলের চিপ হুইপ বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং জাতীয় পার্টির মহাসচিব এডভোকেট মুজিবুল হক চুন্নুু এমপি,
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তাড়াইল -করিমগঞ্জের রাজনৈতিক সমন্বয়কারী, আমিরুল ইসলাম খান বাবলু, ও খান ব্রাদার্স গ্রুপের চেয়ারম্যান তোফায়েল কবির খান,রবিন, প্রবীণ নেতা মাষ্টার মতিউর রহমান ।
আরো উপস্থিত ছিলেন, জাওয়ার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ এমদাদুল হক রতন, দিগদাইড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ, ধলা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ আসাদুজ্জামান মুবিন সহ সর্বস্তরের জনগণ।
এতে আরও লক্ষ্য করা গেছে, উক্ত গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে হাজার হাজার মানুষের ঢলে বিশাল জন সমুদ্রে পরিণত হয়েছে।

মুজিবুল হক চুন্নু এমপি করিমগঞ্জের, ইকবাল ডাক্তার এবং তার আওয়ামী লীগ সরকারকে চ্যালেঞ্জ করে বলেন,
, তার টেক্সফাইল ছাড়া যদি এক ছটাক সম্পত্তি যদি থাকেন তাহলে সরকার সেই সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করুক,আরও আবেগ আপ্লুত কণ্ঠে বলেন,তার অবৈধ সম্পদ খুঁজে পেলে জুতার মালা পড়ে ঘুরবে, আর যদি ইকবাল ডাক্তারের অবৈধ সম্পদ প্রমাণ হয় তাহলে ইকবাল ডাক্তার কে নেয়ামতপুর বাজারে জুতার মালা পড়ে ঘুরতে হবে।
তিনি আরও বলেন, একজন এমপি-মন্ত্রীর কি বরাদ্দ আছে তা তিনি কখনো গোপন রাখেননি কিন্তু আমার সম্পর্কে যারা সমালোচনা করছেন তারা জানে না তাড়াইল- করিমগঞ্জের মানুষ আমাকে কতটুকু ভালবাসেন। আমি তাড়াইল – করিমগঞ্জের মানুষের কাছে কোন কিছু গোপন রাখেনি।

তিনি নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান কে সতর্ক করে বলেন, যারা তোমাকে বিজয়ী করেছেন সেই জনগণের পাশে থেকে সর্বদাই সেবা কর এবং যারা তোমার বিপক্ষে ছিল তাদেরকে তুমি দূরে ঠেলে দিবে না তুমি দলবল নির্বিশেষে উপজেলার সকলের চেয়ারম্যান সেটা মাথায় রাখিও ।

নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম ভূঞা শাহীন বলেন, যারা স্বাধীনতার পক্ষে থেকে এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা মজিবুল হক চুন্নুর পাশে থেকে, আমাকে বিজয় করেছেন তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই । তিনি আরও বলেন,
আমি তাড়াইল উপজেলাকে একটি মাদকমুক্ত উপজেলা এবং শান্তিনগরী গড়ে তুলতে, চাই এমনকি সাধারণ মানুষের অধিকারের পাশাপাশি ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করতে চাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category