আজ ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

‘১০ টাকায় দুধ বিক্রি’ জাতীয় সম্মাননা পেলেন কিশোরগঞ্জের এরশাদ উদ্দিন

শফিক কবীর কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি : রমজান এলেই ব্যবসায়ীরা যেখানে দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়ানোর প্রতিযোগিতায় ব্যস্ত সেখানে মাসব্যাপী ১০টাকা লিটারে পুরো খামারের দুধ বিক্রি করে মানুষের দোয়া ও প্রসংশা এবং এবার জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের বেস্ট প্র্যাকটিস সম্মাননা পেলেন কিশোরগঞ্জের খামারি আলহাজ্ব মো. এরশাদ উদ্দিন।

শুক্রবার (১৫ মার্চ) সকালে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বিশ্ব ভোক্তা অধিকার দিবস ২০২৪ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তাকে এ সম্মাননা প্রদান করা হয়।
উক্ত সম্মাননা অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু এমপির হাত থেকে তিনি এ সম্মাননা স্মারক গ্রহণ করেন।
বিশ্ব ভোক্তা অধিকার দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন – জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) এ. এইচ. এম সফিকুজ্জামান, কনজ্যুমার এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) সভাপতি গোলাম রহমান, এফবিসিসিআই এর সভাপতি মাহবুবুল আলম, বানিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি টিপু মুনশি (এমপি)।
কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ উপজেলার রৌহা গ্রামের বাড়িতে এরশাদ উদ্দিনের প্রতিষ্ঠিত জেসি এগ্রো ফার্ম থেকে গত তিন বছরের ধারাবাহিকতায় এবারও ১০ টাকা লিটার দুধ বিক্রির কার্যক্রম শুরু করেন তিনি। তার এই মানবিক উদ্যোগটি এবার জাতীয় পর্যায়ে প্রাতিষ্ঠানিক স্বীকৃতি লাভ করে।
মো. এরশাদ উদ্দিন কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতপুর ইউনিয়নের রৌহা গ্রামের বাসিন্দা। তিনি বাংলাদেশ মিলস্কেল রি-প্রসেস অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও জেসি অ্যাগ্রো ফার্মের চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য। এছাড়াও তিনি প্রাকৃতিক দুর্যোগ ঈদ পুজা এবং বিভিন্ন সময়ে সাহায্য সহযোগিতা করার জন্য নিজের নামে প্রতিষ্ঠিত করেছেন এরশাদ উদ্দিন মানব কল্যাণ ফাউন্ডেশন ও শিক্ষার আলো প্রসারিত করার জন্য স্কুল এন্ড কলেজ।

তিনি জানান, চার বছর আগে নিজ এলাকায় জে সি অ্যাগ্রো ফার্ম নামে একটি গরুর খামার গড়ে তোলেন। খামারে দুগ্ধ ও মোটাতাজাকরণের প্রায় পাঁচ শতাধিক গরু রয়েছে। এর মধ্যে বর্তমানে ২০/২৫টি গরু দুধ দেয় যা ৭০ থেকে ৭৫ লিটার দুধ উৎপাদিত হচ্ছে। সেই সব দুধ তিনি আজীবন ১০ টাকা লিটার দরে বিক্রির সিদ্ধান্ত নেন। রমজান জুড়ে যে কেউ তার খামার থেকে নাম মাত্র ১০ টাকা লিটার দরে সর্বোচ্চ এক লিটার দুধ কিনতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category