আজ ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কিশোরগঞ্জে হত্যা মামলার প্রধান আসামি গ্রেফতার

নিজস্ব  প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার চাঞ্চল্যকর মালেক হত্যা মামলার পলাতক প্রধান আসামি আজিজুল হক (৩৮) কে গ্রেফতার করেছে কিশোরগঞ্জ র‌্যাব -১৪ সিপিসি -২ কিশোরগঞ্জ ক্যাম্প।
র‌্যাব-১৪, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের অধিনায়ক স্কোয়াড্রন লীডার মোঃ আশরাফুল কবীর সংবাদ মাধ্যম কে জানান, গোয়েন্দা তথ্য ও গোপন সংবাদের
ভিত্তিতে গত বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী রাত ৯ টার সময় নরসিংদী জেলার মনোহরদী এলাকায় র‌্যাব-১৪ সিপিসি -২ এবং র‌্যাব-১১ সিপিসির এক যৌথ অভিযান পরিচালনা করে পাকুন্দিয়া উপজেলার চাঞ্চল্যকর মালেক হত্যা মামলার এজারনামীয় ১নং আসামি আজিজুল হক (৩৮) কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আজিজুল হক পাকুন্দিয়া উপজেলার পূর্ব কুমারপুর এলাকার মৃত আইজ উদ্দিনের ছেলে।
ঘটনার বিবরণে জানাযায়, গত ৪ ফেব্রুয়ারি দুপুর ২.৫ ঘটিকার পাকুন্দিয়া থানাধীন কুমারপুর পুরাতন জামে মসজিদের সামনে জমি সংক্রান্ত গ্রাম্য শালিস শেষ করে ভিকটিম আঃ মালেক(৭৫), বাড়ী ফেরার পথে ভিকটিমের বসত বাড়ীর উঠানে পৌছামাত্র আসামী আজিজুল হক(৩৮) সহ এজাহারনামীয় অন্যান্য আসামীরা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আবদুল মালেকের বসত বাড়ীর উঠানে প্রবেশ করে তার পথের গতিরোধ করে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে গুরুতর জখম করে। পরে স্থানীয় এলাকাবাসী আবদুল মালেক কে উদ্ধার করে প্রথমে পাকুন্দিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় এবং প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য কিশোরগঞ্জ শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায় সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে আরও উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। রাত ৯ টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।
উক্ত ঘটনায় ভিকটিমের ছেলে মোঃ রফিকুর ইসলাম(৩২) বাদী হয়ে পাকুন্দিয়া থানায় ১টি হত্যা মামলা দায়ের করে। আসামীরা আটক থেকে বাঁচতে বিভিন্ন জায়গায় পালিয়ে বেড়াচ্ছিল। উক্ত আসামীদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে আসতে র‌্যাব গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধি করে পলাতক থাকা ১নং আসামীর অবস্থান সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য ও অবস্থান নিশ্চিত করে র‌্যাব-১৪, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্প ও র‌্যাব-১১, সিপিএসসি নরসিংদী ক্যাম্পের যৌথ অভিযানে আজিজুল হক কে গ্রেফতার করে।
গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কিশোরগঞ্জ জেলার পাকুন্দিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।
ইতিপূর্বে গত ১০ ফেব্রুয়ারি উক্ত মামলার এজাহারনামীয় ৪নং আসামী হানিফ মিয়া(৩৬) ও ১৩নং আসামী কুদ্দুছ মিয়া(৩৫) কে র‌্যাব-১৪, সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্প গ্রেফতার করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category