আজ ২৯শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

তাড়াইলে যৌন হয়রানি প্রতিরোধ ও প্রতিকার  শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

হুমায়ুন রশিদ জুয়েল কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জ জেলা তাড়াইলে ১৮-০৯-২০২৩ ইং তারিখে রোজ সোমবার দুপুর ১২.৩০ মিনিট জাতীয় কন্যা শিশু অ্যাডভোকেসি ফোরাম ও মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা উপজেলা আয়োজনে ও সহযোগিতায়, তাড়াইল উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে প্রস্তাবিত যৌন হারায়নি প্রতিরোধ ও প্রতিকার আইন ২০২২ প্রয়োজনীয়তা শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন তাড়াইল উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মাহমুদা সুলতানা, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার একে, এম , গোলাম কিবরিয়া, দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশ এর আঞ্চলিক সমন্বয়কারী জয়ন্ত কর, তাড়াইল মুক্তিযোদ্ধা সরকারি ডিগ্রী কলেজের সহকারী অধ্যাপক মনোরঞ্জন, তালুকদার,যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা, আনিসুজ্জামান খান, দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশ এর ফিল্ড কোর্ডিনেটর মো: আখতারুজ্জামান , জেলা পরিষদের সম্মানিত সদস্য, একে এম জামান সম্রাট, এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, তালজাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আবু জাহেদ ভুইঁয়া, দামিহা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ গোলাপ হোসেন ভুইঁয়া, দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশ এর এলাকার সমন্বয়কারী খায়রুল বাশার রাসেল সহ সাংবাদিক মিডিয়া ও তৃণমূল পর্যায়ের জনসাধারণ। বক্তব্য আবু জাহেদ ভুইঁয়া বলেন, যৌন হয়রানি প্রতিরোধ করতে হলে, অবশ্যই অবশ্যই আমাদের পিতা মাতা এবং শুধু মেয়েদের অভিভাবক যারা আছেন তাদেরকে আগে সচেতন হতে হবে , আমার ছেলে মেয়ে কি পোশাক পরিধান করছে? কোথায় যাচ্ছে?সারাক্ষণ মোবাইল ফোনে আসক্ত কিনা ইত্যাদি বিষয়ে সার্বক্ষণিক রাখতে লক্ষ্য রাখতে হবে।তবেই অনেকাংশে যৌন হয়রানি রুট করা যাবে। মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মাহমুদা সুলতানা বলেন, যৌন হয়রানি একটি সামাজিক ব্যাধি, যৌন হয়রানি শুধু আইন দিয়েই প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়, পাশাপাশি আমাদের সকলকে সে বিষয়ে সচেতনতা অবলম্বন করতে হবে। ছেলে-মেয়েদেরকে মোবাইল ফোনে আসক্ত হচ্ছে কিনা সে দিকেও লক্ষ্য রাখতে হবে।তবেই যৌন হয়রানি প্রতিরোধে সফলতা আসবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category