আজ ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ত্রিশাল উপজেলা আ’লীগের কমিটি নিয়ে অভিযোগ দাখিল কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের সাথে সাক্ষাৎ

স্টাফ রিপোর্টারঃবাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ময়মনসিংহ জেলার ত্রিশাল উপজেলার পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদনের জন্য বিএনপি, জামাত ও অপরিনত বয়সের লোকদিয়ে তালিকা প্রনয়ন করে জেলা কমিটিতে জমা দেওয়ার বিষয়ে অভিযোগ পত্র দিয়েছে ত্রিশাল উপজেলার সাবেক ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও ত্যাগী আওয়ামীলীগ নেতারা।

ফেইজবুক মেসেন্জার গ্রুপের মাধ্যমে জানাযায়, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি/সাধারণ সম্পাদক বরাবরে এনিয়ে একটি অভিযোগপত্র প্রেরণ করছেন।

এই অভিযোগ পত্রে উল্লেখ রয়েছে যে,ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামীলীগ কমিটি অনুমোদন চেয়ে যে পুনাঙ্গ কমিটির প্রস্তাব করে তালিকাটি ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগ বরাবরে জমা দিয়েছে এই তালিকায় ৩৬ জন ব্যক্তি রয়েছে যারা জামাতের দায়িত্বপ্রাপ্ত লোক ছিল বিএনপি সমর্থিত লোক ছিল ও কখনোই আওয়ামীলীগের সাথে যুক্ত ছিল না তারাও স্থান পেয়েছে ।
ত্রিশালে যারা দলের দুঃসময় রাজপথে থেকেছে সিনিয়র ত্যাগী নেতাদেরকে এই কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত না করে অন্যদলের লোকদেরকে উপজেলা আওয়ামীলীগের কমিটিতে যুক্ত করার সুযোগ করে দেওয়ার বিষয়টি সাধারণ ভাবে দেখছেন না তৃণমূল আওয়ামী জনগোষ্ঠী।

এছাড়াও ইউনিয়ন ওর্য়াড কমিটি নিয়ে আরেক চিত্র। যেখানে উপজেলা আওয়ামীলীগের পুনাঙ্গ কমিটি অনুমোদন চেয়ে কারেন্টের মত ছট পেয়েছেন ঠান্ডা নেতারা সেখানে কি ভাবে কোন গঠনতন্ত্র মূলে নির্বাচনী ফরম তৈরী করে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের এবং পৌরসভা আওয়ামীলীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রি করলেন? সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের ফরম ক্রয় বিক্রয় করা হলো ওয়ার্ডের দায়িত্ব ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি সাধারণ সম্পাদক জানেন না। কি করে জানবেন? ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক নির্বাচন করার জন্য তো ১ডজন করে ফরম বিক্রি করে দিয়ে প্রার্থী বানিয়ে মাঠে নামিয়ে রেখেছেন, এখানে ওয়ার্ডের খবর ইউনিয়ন সভাপতি- সাধারণ সম্পাদক রাখার সময় কয়?
বিষয়টি নিয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক জেলার সাবেক নেতার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ত্রিশাল আওয়ামীলীগ যে ভাবে পরিচালনা করার প্রস্তুতি নিচ্ছে তা দলের গনতন্ত্রের পরিপন্থি। তাদের খেয়াল খুশি মত যদি উপজেলা আওয়ামীলীগ পরিচালিত হয় তাহলে একসময় ত্যাগী নেতাদেরকে তারা কখনোই চিনবে না আর এদের পিছনে ত্যাগীরা আসবেও না। এ নিয়ে ত্রিশালের সাবেক কিছু ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাদের সাথে কথা বললে তারা জানান, আমরা জেলা ও কেন্দ্রে ত্রিশালের পরিস্থিতি নিয়ে অভিযোগপত্র দিয়েছি ত্রিশালে বর্তমান আওয়ামীলীগের কার্যক্রম বিষয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদেরকে অবগত করেছি সবাই অপেক্ষায় রয়েছি কেন্দ্রীয় নেতারা বিষয়টি নিয়ে তদন্ত কমিটি করবেন কিনা? আর অভিযোগ পত্রে উল্লেখিত বিষয় গুলো তদন্ত করে সত্যতা পেলে সাংগঠনিক ব্যবস্থা কি নিবেন তা দেখার জন্য?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category