আজ ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

পুলিশ সুপারের সাক্ষর জাল করে কনস্টেবল নিয়োগে অংশ গ্রহণকারী আটক

 নিজস্ব  প্রতিনিধি ঃ কিশোরগঞ্জে পুলিশ সুপারের সাক্ষর ও সীল জাল করে পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগ পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার অভিযোগে মো: রাজু আহম্মেদ সজিব (১৯) নামের এক তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আটককৃত মো: রাজু আহম্মেদ সজিব জেলার হোসেনপুর উপজেলার চর জিনারী এলাকার সামসু উদ্দিনের ছেলে।

গত শনিবার (০৪ মার্চ) থেকে সোমবার (০৬ মার্চ) কিশোরগঞ্জ পুলিশ লাইন্স মাঠে পুলিশ কনস্টেবল পদে নিয়োগ পরীক্ষার শারীরিক সক্ষমতা যাচাই ও কাগজপত্র যাচাই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষাচলাকালীন চাকরি প্রার্থী মো: রাজু আহম্মেদ সজিব অংশগ্রহণ করে। তিনি রোববার (৫ মার্চ)শারীরিকসহ অন্যান্য পরীক্ষায় অকৃতকার্য হলে পুলিশ সুপারের স্বাক্ষর জাল করে ভুয়া প্রবেশপত্র নিয়ে পুলিশ লাইন্সে সোমবার (০৬ মার্চ) প্রবেশ করেন। পরে পুলিশ সুপার ও নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের মূল স্বাক্ষর ও সীলের সঙ্গে গড়মিল হওয়ায় তাকে আটক করা হয়।
পুলিশ জানায়, রাজু ‘কৃতকার্য’ ও ‘যোগ্য’ লেখা ২টি সীল নকল করে তার প্রবেশ পত্রে ব্যবহার করে সোমবার (০৬ মার্চ) নিয়োগ পরীক্ষাতে অংশগ্রহণের জন্য পুলিশ লাইন্স মাঠে প্রবেশ করে সকাল ১০ঃ ১০ মিনিটে। পরে নিয়োগ বোর্ডের কাছে প্রবেশ পত্র উপস্থাপন করলে তাতে ব্যবহৃত স্বাক্ষর ও সীল প্রাথমিকভাবে নকল প্রতীয়মান হওয়ায় বোর্ড সদস্যগন তাকে প্রশ্ন করলে সন্দেহজনক আচরণ করে। পরে কিশোরগঞ্জ মডেল থানায় সংবাদ দিলে উপপরিদর্শক দেলোয়ার সঙ্গীয় অফিসার-ফোর্সসহ পুলিশ লাইন্সে এসে রাজুকে আটক করে থানায় নিয়ে যান। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে রাজু স্বাক্ষর ও সীল জালের মাধ্যমে প্রতারণার কথা স্বীকার করেন। এবং রাজুর দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে এবং দেখানো মতে পুলিশ লাইন্স সংলগ্ন জনৈক আমিনুল হক সুজনের বাসার উত্তর পার্শ্বে ফাকা জায়গা হতে ২টি সীল ও ১টি সীল প্যাড উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও জালিয়াতি ও প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত ১টি মোবাইল ফোন, ভিজিটিং কার্ডসহ অন্যান্য জিনিস জব্দ করা হয়।

পরে  তাকে মঙ্গলবার (০৭ মার্চ) দুপুরে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category