আজ ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কিশোরগঞ্জে সৈয়দ নজরুল ও সৈয়দ আশরাফের ম্যুরালের বিকৃত

নিজস্ব  প্রতিনিধি ঃ কিশোরগঞ্জ জেলা শহরে নির্মিত বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম এবং তার ছেলে আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মন্ত্রী প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরালের মুখমণ্ডলে কালো রং দিয়ে বিকৃত করা হয়েছে।
ধারণা করা হচ্ছে, রোববার রাতের কোনো একসময় শহরের কালিবাড়ী মোড় এলাকায় শহরের সৈয়দ নজরুল ইসলাম চত্বরে অবস্থিত ম্যুরাল দূটিতে এ ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( সদর সার্কেল) মো. আল-আমিন হোসাইন, মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দাউদ, পৌর মেয়র পারভেজ মিয়া ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘রাতের আঁধারে অথবা কুয়াশাচ্ছন্ন ভোরে দুষ্কৃতকারীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে, প্রাথমিকভাবে তা জানা যায়নি। তাদের আইনের আওতায় আনতে প্রশাসন কাজ করছে।’

পৌর মেয়র পারভেজ মিয়া বলেন, ‘সৈয়দ নজরুল ইসলাম ও সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম কিশোরগঞ্জের প্রাণের স্পন্দন। তাদের ম্যুরালে যারা এমনটি করেছে, এটা মেনে নিতে পারছি না। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’
মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দাউদ বলেন, ‘ভোররাতে অথবা কুয়াশাচ্ছন্ন ভোরে এ ঘটনাটি ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে, প্রাথমিকভাবে তা জানা যায়নি। এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের চাচাতো ভাই কিশোরগঞ্জের জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু বলেন, ‘এর আগেও গত বছর সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরালে আঘাত করা হয়েছে। তার সঠিক বিচার হয়নি। আজ আবারও শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলামের ম্যুরাল ও সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরালে রং দিয়ে বিকৃতি করা হয়েছে।’ ৪৮ ঘণ্টার ভেতরে জড়িতদের আইনের আওতায় আনতে হবে।’
শহরের কালীবাড়ী সড়কে নরসুন্দা নদীর তীরে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরালটি নির্মাণ করে কিশোরগঞ্জ পৌরসভা। নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার পর ২০২০ সালের ৩০ নভেম্বর ম্যুরালটির উদ্বোধন করা হয়। এর আগে ২০২১ সালের ৩০ জুলাই একই স্থানে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরালটি ভাঙচুর করা হয়। ওই ঘটনায় এক যুবককে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠায় পুলিশ।

কিশোরগঞ্জের ফেসবুক গ্রুপে সোমবার সকালে এই ম্যুরালের দুটি ছবি আপলোড করা হলে ঝড় উঠে সমালোচনার, আলোচনা সর্বত্র।

দোষীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনার দাবিতে বিকেলে উক্ত স্থানে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে সর্বস্তরের জনগণ। বিচারের দাবিতে প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন – জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট জিল্লুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট এম এ আফজল, যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ আওলাদ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুস সাত্তার সহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category