আজ ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

মাধবদীতে যাত্রা শুরু করলো “ক্যান্ডেল পার্ক” রেস্টুরেন্ট

মোঃ আল আমিন, মাধবদী (নরসিংদী) প্রতিনিধি:

মাধবদীতে আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করলো ক্যান্ডেল পার্ক নামের রেস্টুরেন্ট। এটি মাধবদী পৌর শহরে প্রথম ভিন্ন আঙ্গিকের একটি রেস্টুরেন্ট। মাধবদী পৌর মেয়র হাজ্বী মোশাররফ হোসেন প্রধান মানিক প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে উদ্বোধন করেন এ রেস্টুরেন্টেটি। সুসজ্জিত পরিবেশে বৈচিত্র্যময় খাবারের সম্ভার পাবেন নতুন এ রেস্টুরেন্টটিতে। বাংলার ঐতিহ্য লালিত কারু শিল্পে বেষ্টিত আধু‌নিকতার ছোয়ায় ম‌নোরম প‌রি‌বেশ ও স্বাস্থ্যসম্মত খাবা‌রের নিশ্চয়তা নি‌য়ে গত বুধবার সন্ধায় মাধবদী পৌর শহরের ৫ নং ওয়ার্ডের মাধবদী হাই স্কুলের বড় মাঠ সংলগ্ন কালাম প্রধান মার্কেটের কেপি হাউজে উ‌দ্বোধন হলো ক্যান্ডেল পার্ক নামের রেস্টু‌রেন্টটি।
প্রধান অতিথি হিসেবে মাধবদী পৌর মেয়র মোশাররফ হোসেন প্রধান মানিক বলেন- মাধবদীতে সুন্দর ও মনোরম পরিবেশে আজ থেকে ক্যান্ডেল পার্ক নামের রেস্টুরেন্টের যাত্রা শুরু হয়েছে। উন্নত সেবা ও বিশুদ্ধ খাবার পরিবেশনের মাধ্যমে এই রেস্টুরেন্ট সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম বলে তিনি প্রত্যশা করেন। তিনি এই রেস্টুরেন্টের পরিবেশ ও খাবারের মান সম্পর্কে প্রশংসা করে বলেন, আধুনিক সুযোগ সুবিধাসহ রেস্টুরেন্টের ভিতরের ও বাহিরের দৃশ্যগুলো আমার কাছে ভালো লেগেছে। তিনি রুচিশীল সকলকে প্রয়োজনে এই রেস্টুরেন্টের সেবা গ্রহণ করার আহবান জানান। মাধবদীর মানুষ যাতে এখানে এসে মানসম্মত খাবার খেতে পারে এবং খাবারের মূল্য যেন সীমিত হয় সেদিকে ক্যান্ডেল পার্ক কর্তৃপক্ষকে নজর রাখতে বলেন।
রেস্টুরেন্টের মালিক মামুন বলেন – ক্যান্ডেল পার্কটি মাধবদীতে শ্রেষ্ঠ হিসেবে আমি প্রতিষ্ঠা করবো ইনশাআল্লাহ। খাবারের মান, মূল্য ও ধরণ নিয়ে আমরা সচেতন আছি। মাধবদীবাসীর খাবারের রুচি ও চাহিদার প্রতি লক্ষ্য রেখেই আমরা আমাদের ক্যান্ডেল পার্কটি সাজিয়েছি। ভোজন রসিকদের আমাদের এই পার্কে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি। আপনারা আসুন এবং আমাদের কাজের পার্থক্য যাচাই করুন। পরিবার, পরিজন নিয়ে আপনারা সাচ্ছন্দ্যে খেতে পারবেন এবং সকল প্রকার শৃঙ্খলা বজায় রাখতে আমরা অঙ্গীকারবদ্ধ।
পরিবার নিয়ে খেতে আসা সাইফ বলেন- চারপাশে সবুজ পরিবেশ, খোলামেলা জায়গায় হওয়ার কারণে প্রাকৃতিক বাতাস অনুভব করা যায়। তাছাড়া, কৃত্রিমতা বর্জন করে প্রাকৃতিক গ্রামীণ পরিবেশ সৃষ্টি করে কিছুটা হলেও ভিন্নতা এসেছে। আমার ভালো লেগেছে। আপনাদেরও ভালো লাগবে আশা করি।
যারা এখনো আসেনি তাদের কে আসার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ক্যান্ডেল পার্কটির কতৃপক্ষ।
ক্যান্ডেল পার্ক রেস্টুরেন্টের মালিক মামুনের সভাপতিত্বে উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মাধবদী পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রাজিব আহমেদ, ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হেলাল উদ্দিন, ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর গৌতম ঘোষ, মোঃ মকবুল হোসেন, কাজল, সাইদ আল মামুন, আফজাল হোসেন, মোঃ জিল্লুর রহমান, মোঃ সেলিম হোসেন, মাহফুজুর রহমান কালাম প্রধান, মজিবুর রহমান সহ গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ। এ ক্যান্ডেল পার্কটি প্রতিদিন সকাল ১১টা থেকে রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। এখানে প্রতিদিন বাংলা, চাইনিজ ও ইন্ডিয়ান খাবার পাওয়া যাবে। খোলামেলা পরিবেশে গড়ে ওঠা এ ক্যান্ডেল পার্কটি মাধবদীর ভোজন রসিকদের কাছেও জনপ্রিয়তা পাবে বলে মনে করেন কর্তৃপক্ষ। ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম বা স্ন্যাপচ্যাটের যুগে রেস্টুরেন্টে গিয়ে একটু ‘ফুডোগ্রাফি’ আর ‘ফটোগ্রাফি’ বিষয়টিও এখন খুবই পরিচিত। তাই ভোক্তা বা কাস্টোমারদের আর্কষণ করার জন্য ক্যান্ডেল পার্ক রেস্টুরেন্টেটি তাদের ইন্টেরিয়র ডিজাইনে নতুনত্ব এবং ভিন্নতা নিয়েই হাজির হয়েছে মাধবদীতে। তাই নজরকাড়া ইন্টেরিয়র ডিজাইন দিয়েই সাজানো হয়েছে এই নতুন রেস্টুরেন্টটি৷ ভোজন রসিক মানুষের পাশাপাশি অনেকেই আছেন যারা মজাদার নিত্যনতুন আইটেম চেখে দেখার ইচ্ছা থেকে শহরের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তেও চলেও যান। অনেকের কাছে নতুন নতুন খাবার খাওয়া তাদের শখ। আবার কিছু মানুষ এমন আছে যাদের কাছে খাবার একটি শিল্প। যেটা অনেক আগে থেকেই চর্চা হয়ে আসছে। আবার অনেকের কাছে খাবার ভালোবাসার একটি বিষয়। সুতরাং আপনি যদি এমন কেউ হয়ে থাকেন যিনি নতুন টেস্টের খাবার খেতে ভালোবাসেন এবং প্রচণ্ড খাদ্যবিলাসী তা হলে নিঃসন্দেহে মাধবদীর এই নতুন ক্যান্ডেল পার্ক রেস্টুরেন্টটি আপনার নেক্সট ডেস্টিনেশন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     More News Of This Category