আজ ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

যানজটমুক্ত পরিচ্ছন্ন শহরের দাবিতে কিশোরগঞ্জে ১০ সংগঠনের যৌথ মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

নিজস্ব প্রতিনিধি ঃ বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)’র উদ্যোগে কিশোরগঞ্জকে যানজটমুক্ত ও পরিচ্ছন্ন শহরের দাবিতে যৌথ ১০টি সংগঠনের শত শত সদস্যের অংশ গ্রহণে এক বিশাল মানববন্ধন ও জেলা প্রশাসক বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

শনিবার (২৩জুলাই) সকাল ১১টায় যানজটমুক্ত ও পরিচ্ছন্ন শহর গড়ার লক্ষে ১০দফা দাবি আদায়ে শহরের কালীবাড়ি মোড়ে এ মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত মানববন্ধনে পরিবেশ রক্ষা মঞ্চ (পরম) এর সভাপতি অধ্যক্ষ শরীফ আহমদ সাদীর সভাপতিত্বে ও বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)’র সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম জুয়েলের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন, নিরাপদ সড়ক চাই কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি ফিরোজ উদ্দিন ভূঞা, সাধারণ সম্পাদক মোঃ শফিক কবীর, মুক্তমঞ্চ শরীর চর্চা কেন্দ্রের সভাপতি মো. আবু হাসান বাবুল, সম্মিলিত নাগরিক আন্দোলনের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা এড. অশোক সরকার, সহ-সভাপতি প্রকৌশলী আনিসুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক খায়রুজ্জামান রবিন, সামাজিক আন্দোলন সদর উপজেলা শাখার সভাপতি মো. হোসেন আলী, জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পরমের সদস্য আনোয়ার হোসেন বাচ্চু,পরিবেশ রক্ষা মঞ্চ (পরম)’র সাধারণ সম্পাদক কবি বাধন রায়, উদীচি শিল্পী গোষ্ঠীর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক স্বপন কুমার বর্মন, মাদক বিরোধী আন্দোলনের সভাপতি আব্দুল্লাহ ইবনে শাহজাহান, ওয়েপের নির্বাহী পরিচালক মিজানুর রহমান রিপন, আমরা সবুজ শরীর চর্চা কেন্দ্রের এস এম জাহাঙ্গীর আলম, মাসুম বিল্লাহ,হাসমত উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান, বৃক্ষপ্রেমী মোহাম্মদ হোসেন, বাপার সদস্য হুমায়ুন কবীর প্রমূখ।

বক্তাগণ বলেন এ শহর আমাদের এর রক্ষণাবেক্ষণ ও ভালো-মন্দ দেখার দায়িত্বও আমাদের, তাই যানজটমুক্ত ও পরিচ্ছন্ন কিশোরগঞ্জ বাস্তবায়নে ১০ দফা দাবি ( ফুটপাত ব্যবসার নয় পথচারীদের, রাস্তায় কোন দোকান নয় তা চলাচলের, রাস্তার উপর মোটরসাইকেল কিংবা অটোরিকশা পার্কিং চলবে না, শহরের ব্যস্ততম রাস্তায় যত্রতত্র রিকশা-অটোরিকশা সিএনজি স্ট্যান্ড থাকবে না, রাত ৯ টা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত মালামাল লোড-আনলোড করা ট্রাক শহরে প্রবেশ করতে পারবে না, রাস্তায় নির্মাণসামগ্রী ফেলে রাখা যাবে না, প্রতিদিন নির্দিষ্ট সময়ে ময়লা-আবর্জনা সরিয়ে নিতে হবে, পানি চলাচলের জন্য সকল ড্রেন পরিষ্কার রাখতে হবে, শহরে বয়ে যাওয়া নরসুন্দা নদীতে পয়নিষ্কাশন চলবে না নদীকে গতিশীল করার উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে, শহর ও শহরতলীর সকল সড়ক প্রশস্ত করার মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে) আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।
মানববন্ধনে শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে একটি স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
এ সময় বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন৷

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     More News Of This Category