কিশোরগঞ্জে বাংলাদেশ প্রতিদিন এর দুই যুগ পদার্পণে বর্ণিল আয়োজন

নিজস্ব প্রতিনিধি ঃ এক যুগ পেরিয়ে দুই যুগে প্রবেশ করল জনপ্রিয় পত্রিকা দৈনিক ‘বাংলাদেশ প্রতিদিন’। বর্ণিল আয়োজনে কিশোরগঞ্জে উদযাপিত হল পত্রিকাটির ১৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী।

এ উপলক্ষে মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) বিকেলে জেলা পাবলিক লাইব্রেরি অডিটোরিয়ামে শুভেচ্ছা বিনিময়, আলোচনা সভা ও কেক কাটা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সর্বাধিক প্রচারিত জনপ্রিয় দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি সাইফউদ্দীন আহমেদ লেনিনের সভাপতিত্বে শুভেচ্ছা বিনিময়, আলোচনা সভা ও কেক কাটা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার)।

এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা পাবলিক লাইব্রেরির সম্পাদক বিশিষ্ট লেখক মু. আব্দুল লতিফ, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এডভোকেট শেখ নূরুন্নবী বাদল, বীর মুক্তিযোদ্ধা লেখক অধ্যাপক আবুল কাশেম, জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি আব্দুর রহমান রুমী ও জেলা উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর সভাপতি ফিরোজ উদ্দিন ভূইয়া।
এছাড়াও সভায় বক্তব্য রাখেন সিনিয়র সাংবাদিক এ. কে নাসিম খান, সিনিয়র সাংবাদিক মোস্তফা কামাল, সিনিয়র সাংবাদিক সাইফুল হক মোল্লা দুলু, সিনিয়র সাংবাদিক এডভোকেট শেখ মাসুদ ইকবাল, জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা কিশোরগঞ্জ জেলা ইউনিটের সভাপতি রেজাউল হাবিব রেজা, সিনিয়র সাংবাদিক মুনিরুজ্জামান খান চৌধুরী সোহেল, সিনিয়র সাংবাদিক আশরাফুল ইসলাম, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিলকিস বেগম, জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বাচ্চু, জেলা যুব লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক এডভোকেট মীর আমিনুল ইসলাম সোহেল প্রমুখ।

বক্তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে বাংলাদেশ প্রতিদিনের অগ্রযাত্রায় শুভ কামনা করে বলেন, গণ মানুষের চাহিদা মেটাতে পত্রিকাটি যে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখছে, আগামী দিনেও এই ধারা অব্যাহত থাকবে।

সভায় সদ্য প্রয়াত বাংলাদেশ প্রতিদিনের নির্বাহী সম্পাদক পীর হাবিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা এবং তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করা হয়।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন এশিয়ান পোস্টের সম্পাদক হাবিবুর রহমান বিপ্লব। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক, অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিক ছাড়াও বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

শুভেচ্ছা বিনিময় ও আলোচনা সভা শেষে প্রধান অতিথি পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার) উপস্থিত অতিথিদের নিয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *