কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে মা-ছেলে’সহ ৬ জন

নিজস্ব প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে কৃষক দুলাল মিয়া হত্যা মামলায় মা-ছেলে’সহ ৬ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন কিশোরগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালত।

১৭ জানুয়ারি সোমবার দুপুরে কিশোরগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোঃ সায়েদুর রহমান খান সাখ্যপ্রমানের ভিত্তিতে বিচার বিশ্লেষন করে ছয় আসামির মধ্যে পাঁচ আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। ঘোষিত রায়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের পাশাপাশি প্রত্যেক আসামিকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা ও অনাদায়ে আরো ৬ মাস কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে। এ সময় সাজাপ্রাপ্ত ৬ আসামির মধ্যে ৫ আসামি আদালতের এজলাসে উপস্থিত ছিলেন। সাজা প্রাপ্ত এক আসামি পলাতক রয়েছেন।
সাজা প্রাপ্তরা হচ্ছেন কটিয়াদী উপজেলার উত্তরভুনা গ্রামের বাচ্চু মিয়া, ফেরদৌস মিয়া, সাদেক মিয়া, রুহুল আমিন, জুবায়ের ও মঞ্জু বানু। এর মধ্যে আসামি বাচ্চু মিয়া জামিনে গিয়ে পলাতক রয়েছেন। আসামীরা সকলেই কটিয়াদী উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের উত্তর ভুনা গ্রামের বাসিন্দা।
এছাড়া অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় তিন আসামিকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে।

মামলা সুত্রে ও বিজ্ঞ পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট শাহ আজিজুল হক জানান,গত ২০১৭ সনের ২৬ জুন দুপুরে আসামিরা দলবদ্ধভাবে কটিয়াদী উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের উত্তর ভুনা গ্রামের বাসিন্দা কৃষক দুলাল মিয়ার উপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে ওইদিনই বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী নাজমা বেগম বাদী হয়ে ১০ জনকে আসামী করে কটিয়াদী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। তদন্তকারী কর্মকর্তা জেলা সিআইডির পরিদর্শক মো. ছানোয়ার হোসেন ৯ জনকে আসামি করে ২০১৯ সনের ২২ মে অভিযোগপত্র প্রদান করেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন বিজ্ঞ পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট শাহ আজিজুল হক এবং আসামি পক্ষে অ্যাডভোকেট এম এ রশীদ মামলাটি পরিচালনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *