আজ ১৯শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩রা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

অসুস্থ্য খালেদা জিয়ার মৃত্যু চায় সরকার কিশোরগঞ্জে শান্তিপুর্ন সমাবেশে মির্জা আব্বাস

নিজস্ব প্রতিনিধি : বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর দাবীতে কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপি’র  শান্তিপুর্ন সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

৩০ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুরের পুর্ব হতেই জেলা উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতা-কর্মী ও সমর্থকেরা দলে দলে ভিন্ন ভিন্ন ব্যানারে খালেদা জিয়ার মুক্তির স্লোগানে জড়োহতে থাকে শহরের আজিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠের সমাবেশে, দুপুর গড়িয়ে বিকেল হওয়ার সাথে সাথেই মুহুর্তের মধ্যেই বিশাল মাঠ, রেললাইন ও আশেপাশের রাস্তা পরিপুর্ণ হয়েউঠে জনসমাগমে।

জেলা বিএনপির সভাপতি ও কেন্দ্রিয় কমিটির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক শরীফুল আলমের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক মন্ত্রী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য জননেতা মির্জা আব্বাস।
মির্জা আব্বাস বলেন, রাতের ভোটে নির্বাচিত এই স্বৈরাচার সরকার দেশনেত্রি বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিবে না। এই সরকার বেগম জিয়াকে ভয় পায় তাই তাকে সুস্থ্য হতে ও বেঁচে থাকতে দিবেনা।
কারণ, বেগম খালেদা জিয়ার প্রতি সাধারণ মানুষের ভালোবাসা এই সরকার সহ্য করতে পারছে না। তাই চিকিৎসার জন্য বিদেশে না পাঠিয়ে বিভিন্ন তালবাহানার মাধ্যমে কারাগারে আটকে রেখেই হত্যা করতে চায়।

সমাবেশে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ও ঢাকা দক্ষিণ মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আব্দুস সালাম।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ও জাতীয়তা আইনজীবি ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট ফজলুর রহমান, কেন্দ্রিয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট শাহ্ মোঃ ওয়ারেছ আলী মামুন।

জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোঃ মাজহারুল ইসলামের পরিচালনায় ও জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক হাজী ইসরাইল মিয়া, আমিনুল ইসলাম আশফাক ও নাজমুল আলমের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিএনপির বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের কেন্দ্রীয় ও জেলার নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ তাদের বক্তব্যে বলেন, এই অনির্বাচিত স্বৈরাচার সরকারের রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার হচ্ছেন বেগম খালেদা জিয়া। এই সরকার বেগম জিয়াকে সুস্থ্য হতে ও বেঁচে থাকতে দিতে চায়না। জনগণের পিঠ এখন দেয়ালে ঠেকে গেছে। চলমান দুঃশাসন থেকে পরিত্রাণের জন্যই বিএনপির চলমান কর্মসূচি চলছে। এই কর্মসূচি শুধু বেগম জিয়ার মুক্তি ও সুস্থ্যতার জন্য নয়, এই কর্মসূচি দেশের জনগণের মুক্তি ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য।

এসময় কেন্দ্রীয় ও জেলা বিএনপির অঙ্গ সংগঠনের লক্ষাধীক নেতা-কর্মী ও সমর্থকবৃন্দ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     More News Of This Category