নিকলী উপজেলা বিএনপির দালালী কমিটির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন ‘আয়োজক আটক’

নিকলী প্রতিনিধি : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কিশোরগঞ্জ জেলার নিকলী উপজেলা শাখার নব গঠিত আহ্বায়ক কমিটি অসাংবিধানিক অগণতান্ত্রিক ও আওয়ামী এজেন্ডা বাস্তবায়ন অনুপ্রবেশ কারীদের বিরুদ্ধে সাংবাদিক সম্মেলন অনুৃষ্টিত।

১২ সেপ্টেম্বর বিকেলে গার্লসস স্কুলের মোড়ে উপজেলা বিএনপির পরিশ্রমী মেধাবী ত্যাগী নেতা জনাব কামরুল হাসানের নেতৃত্বে ও রফিকুল ইসলাম লিটনের সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে থানা পুলিশের হামলা আটক করা হয় প্রধান আয়োজক কামরুল হাসানকে।
পরে স্থানীয় বিএনপির সাবেক সভাপতি মরহুম মতিউর রহমান বীর বিক্রম এর বাড়ীতে সংবাদ সম্মেলনটি অনুৃষ্টিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন আওয়ামী এজেন্ট, দালাল ও চাটুকার দ্বারা নিকলী উপজেলা বিএনপির নবগঠিত কমিটির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ ও সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হলে, নবগঠিত আহবায়ক কমিটির কিছু সংখ্যক নেতা ও জনৈক আওয়ামী সাংসদের দালাল ও চাটুকার মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে জনাব কামরুল হাসানকে পুলিশের মাধ্যমে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এই আওযামী এজেন্ট ও চাটুকাররা জানেনা, পুলিশ দিয়ে গ্রেফতার করিয়ে সত্যিকারের জিয়ার সৈনিকদের আন্দোলন দমানো যাবেনা।
তাই নবগঠিত দালালী কমিটি বিলুপ্ত করে মাঠ পর্যায়ের ত্যাগী নেতৃবৃন্দের মাধ্যমে নতুন কমিটি গঠনের আহ্বান জানান।

এসময় উপস্থিতি ছিলেন এ কে এম নুরুল আলম কাঞ্চন সহসভাপতি নিকলী উপজেলা বিএনপি, হায়দার আলী কাঞ্চন সভাপতি ছাতির চর ইউনিয়ন বিএনপি, আব্দুল কাদির আক্কল সাবেক সভাপতি গুরুই ইউনিয়ন বিএনপি, জামাল উদ্দিন সহসভাপতি ছাতিরচর ইউনিয়ন বিএনপি, ছাগির হোসেন সহসাধারণ সম্পাদক সিংপুর ইউনিয়ন বিএনপি, হুমায়ুন কবির সহসাধারণ সম্পাদক কারপাশা ইউনিয়ন বিএনপি, মানিক হোসেন সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক’সহ তৃনমূলের শহীদ জিয়ার আদর্শের নেতৃবৃন্দ।

আয়োজক কামরুল হাসানকে প্রায় ৫ ঘন্টা থানায় আটক রেখে পরে নিঃশর্তে মুক্তিদেন নিকলী থানা পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *