কিশোরগঞ্জে হত্যা মামলায় দুই জনের ফাঁসি ও ১৩ জনের যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার চাঞ্চল্যকর কৃষক তাজুল ইসলাম (৪৫) হত্যা মামলায় দুই আসামিকে মৃত্যুদণ্ড ও ১৩ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সাথে প্রত্যেক আসামিকে এক লাখ টাকা করে অর্থদণ্ডও করা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মুহাম্মদ আব্দুর রহিম সোমবার (১৫ মার্চ) সকালে এই রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় সুলতান ও মিজান নামের দুই আসামি ছাড়া সবাই আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন, গোলাপ মিয়া ও সাইকুল ইসলাম। এছাড়াও মামলার এক আসামি সোহেল রানা অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় সংশ্লিষ্ট আদালতে তার বিচার সম্পন্ন হবে।

হত্যা মামলার রায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত ১৩ আসামিরা হলেন, মিজান, সুলতান, রায়হান, হাবিব, ফারুক, জলে বেগম, আনিসা বেগম, হেনা বেগম, মো. সাইদু, আব্দুল হামিদ, আব্দুর রহিম, বাদল মিয়া ও মোস্তফা। দণ্ডপ্রাপ্ত সকল আসামি কটিয়াদী উপজেলার বনগ্রাম ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামের বাসিন্দা এবং পরস্পরের আত্মীয়।

মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, ২০১১ সালের ১ জানুয়ারি জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে তাজুল ইসলামকে খুন করে রায়ে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা। হত্যাকাণ্ডের শিকার তাজুল ইসলাম কটিয়াদী উপজেলার বনগ্রাম ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামের মৃত আব্দুছ ছাত্তারের ছেলে।

দীর্ঘ বিচারকার্য শেষে কিশোরগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালত কৃষক তাজুল ইসলাম (৪৫) হত্যার দায়ে দুই আসামিকে মৃত্যুদণ্ড ও ১৩ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড রায় ঘোষনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *